বর্তমান সময়ে দেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে এক অস্থিতিশীল পরিবেশ বিরাজ করছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এই অস্থিতিশীল পরিবেশ নিরসনে
গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক ভিপি নুরু এবং ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী নেতৃত্বাধীন ভাসানী অনুসারী পরিষদ এক জোট হয়েছেন। এমনকি প্রথম কর্মসূচিও ঘোষনা করেছেন।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী নেতৃত্বাধীন ভাসানী অনুসারী পরিষদ, জোনায়েদ সাকি নেতৃত্বাধীন গণসংহতি আন্দোলন, নুরুল হক নূর নেতৃত্বাধীন ছাত্র, যুব ও শ্রমিক অধিকার পরিষদ এবং হাসনাত কাইয়ুম নেতৃত্বাধীন রাষ্ট্রচিন্তা- এ চারটি সংগঠন তাদের প্রথম কর্মসূচি স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালনের ঘোষণা দিয়েছে। মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ ঘোষণা দেন সংগঠন চারটির নেতারা। ’গণমানুষের রাজনীতি এগিয়ে নিয়ে জনগণের নিজস্ব রাজনীতি প্রতিষ্ঠা’র লক্ষে একত্রে পথ চলার আনুষ্ঠানিক ঘোষণাও দেন তারা।

সংবাদ সম্মেলনে জোটের নেতারা জানান, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে চারটি সংগঠনের যৌথ কর্মসূচি রয়েছে। তারমধ্যে ১ মার্চ মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা, ১২ মার্চ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সুবর্ণজয়ন্তী সমাবেশ, ২৬ মার্চ স্ব-স্ব সংগঠনের উদ্যোগে স্বাধীনতা দিবস পালন, ১০ এপ্রিল স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র দিবস পালন। এছাড়াও দেশব্যাপী বছর জুড়ে বিভিন্ন কর্মসূচি নেওয়া হবে বলে জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী এবং জোনায়েদ সাকি ও নুরুল হক নুর বাংলাদেশের সুপরিচিত চেনা মুখ। বর্তমান সময়ে দেশের চলমান পরিস্তিতি নিয়ে প্রায় সময় নানা ধরনের কথা বার্তা বলছেন তারা। এমনকি সাধারন মানুষের মাঝে তুলে ধরছেন দেশের বর্তমান সরকারের নানা কর্মকান্ড গুলো।