প্রাচীন কাল থেকে মানুষ বিভিন্ন ভাবে সভ্যতার উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন স্থাপনা তৈরি করছে। বিভিন্ন ধরনের দালান, রাস্থা, কালভাট, ব্রিজ তৈরি করছে। এই সকল স্থাপনা তৈরীর ক্ষেত্রে বিভিন্ন ধরনের জিনিস পত্রের প্রয়োজন হয়। বিশেষ ভাবে দালান, কালভাট, ব্রিজ নির্মানে সিমেন্ট এর বিশেষ প্রয়োজন রয়েছে। দেশে বিভিন্ন কোম্পানির সিমেন্ট পাওয়া যায়। বর্তমান সময়ে বিভিন্ন কোম্পানির সিমেন্টের মধ্য শাহ্‌ সিমেন্ট অন্যতম।
গিনেজ বিশ্ব রেকর্ডে নাম উঠেছে শাহ্‌ সিমেন্টের। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভার্টিক্যাল রোলার মিল (ভিআরএম) স্থাপন করে এ রেকর্ড গড়ল বাংলাদেশের সিমেন্ট উৎপাদনের অন্যতম শীর্ষ প্রতিষ্ঠানটি। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের সিমেন্ট শিল্পও পৌঁছে গেল নতুন এক মাইলফলকে।

এ ভার্টিক্যাল রোলার মিলের গ্রাইন্ডিং টেবিল ডায়ামিটার ৮.০৮ মিটার এবং রোলার টেবিল ডায়ামিটার ২.৬৪ মিটার। ছয়টি রোলার সমন্বিত এ ভিআরএম প্রতিদিন ১৫ হাজার এবং বছরে ৬০ লাখ টন সিমেন্ট উৎপাদন করতে সক্ষম। সিমেন্ট উৎপাদনে একই সঙ্গে আকারে বৃহৎ এবং সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সমন্বয়ের উদাহরণ পৃথিবীতে এটাই প্রথম। এ কারণে এই ভিআরএমকে ’পৃথিবীর একক বৃহত্তম’ হিসেবে সত্যায়িত এবং নথিভুক্ত করেছে গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস।

সিমেন্টের উন্নতমান নিশ্চিত করার পাশাপাশি জ্বালানি সাশ্রয়ী হিসেবে ভিআরএম প্রযুক্তি তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে সারা বিশ্বে সমাদৃত। ভিআরএম প্রযুক্তিতে ডেনমার্কের এফএলস্মিথ-এর বিশ্বব্যাপী সুখ্যাতি রয়েছে। শাহ্‌ সিমেন্টের নতুন এই ভিআরএম স্থাপনে কারিগরি ও প্রযুক্তিগত সহযোগিতা দিয়েছে এফএলস্মিথ।

নতুন এই ভার্টিক্যাল রোলার মিলে সর্বাধুনিক ডিজিটাল এবং আর্টিফিশিয়াল ইন্টিলিজেন্স (এআই) প্রযুক্তি সংযুক্ত করা হয়েছে। নিজেদের অগ্রযাত্রাকে আরেক ধাপ এগিয়ে নিতে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভিআরএম প্র্রযুক্তি সংযুক্ত করার পরিকল্পনা হাতে নেয় শাহ্‌ সিমেন্ট। ডেনমার্কের এফএলস্মিথ ও বাংলাদেশের শাহ্ সিমেন্টের পারস্পারিক সহযোগিতায় আলোর মুখ দেখে ’পৃথিবীর সর্ববৃহৎ ভার্টিক্যাল রোলার মিল’।

আবুল খায়ের গ্রুপের পরিচালক (ব্র্যান্ড মার্কেটিং) নওশাদ চৌধুরী বলেছেন, ক্রেতাদের আস্থাই শাহ্ সিমেন্টের মূল ভিত্তি। ১৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক ক্রেতা নিজের বাড়ি নির্মাণে শাহ্ সিমেন্টের ওপর আস্থা রেখেছেন। ক্রেতাদের এই অবিচল আস্থা আমাদের অনুপ্রাণিত করেছে এক বড় স্বপ্ন দেখার, শাহ্ সিমেন্টকে নিয়ে, বাংলাদেশকে নিয়ে।

আমরা যখন উৎপাদন সক্ষমতা বাড়ানোর কথা ভাবছিলাম, তখন এমন উৎপাদন প্রক্রিয়ার কথা ভেবেছি, যা দেশজুড়ে শাহ্ সিমেন্টের নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহই শুধু নিশ্চিত করবে না, প্রতিটি ব্যাগে সেরা মানের সিমেন্টের নিশ্চয়তাও দেবে।

গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে বিশ্বের বিভিন্ন ধরনের রের্কড সমূহ নথি ভূক্ত থাকে। সমগ্র বিশ্বে বিভিন্ন ধরনের আলোচিত ঘটনা ঘটে থাকে এই সকল আলোচিত ঘটনাকে সংরক্ষন এর কাজ ও বিশ্ব দরবারে তা ছড়িয়ে দেওয়ার ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস। বার্ষিক হারে বিভিন্ন রেকর্ড প্রকাশ করে এই প্রকাশনী সংস্থা।