বিয়ে একটি সামজিক বন্ধন। মানব জাতির সৃষ্টি থেকেই নারী পুরুষের এই বন্ধন উল্লেখিত। এই বিয়েকে সরন্মীয় করতে অনেকেই অনেক ধরনের আয়োজন করে থাকে। এবং বিভিন্ন ভাবে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে অনেকেই বিয়ে সম্পন্ন করে থাকে। এই বিয়েতে অনেক ধরনের রীতি নীতি ও রয়েছে। নারী- পুরুষ এই সামজিক বন্ধন ছাড়া সমাজে একত্রিত ভাবে বসবাস করতে পাড়ে না। এক্ষেত্রে এই বন্ধনের গুরুত্ব আপরিসীম।
লাখ লাখ টাকা কিংবা জৌলুসময় স্বর্ণ-হীরার অলংকার নয়, বিয়েতে মোহরানা হিসেবে হবুস্বামীর কাছে দাবি রেখেছিলেন ৮০টি বইয়ের। দাবি পূরণ করেছেন পড়ুয়া তরুণীর স্বামী। শুধু দাবি পূরণ নয়, আরো ২০টি বাড়িয়ে মোহরানা হিসেবে ১০০টি বই দিয়েছেন তিনি।
বিয়ের পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বিছানায় ছড়ানো-ছিটানো বইগুলোর সঙ্গে স্ত্রীর ছবি প্রকাশ করেছেন নববিবাহিত স্বামী। পোস্টটি ফেসবুকজুড়ে বইপ্রেমীদের ভালোবাসায় সিক্ত হচ্ছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ খবর জানিয়েছে।

প্রচলিত প্রথা এড়িয়ে জ্ঞানচর্চা ও সৃষ্টিশীলতার প্রতি ব্যাপক ভালোবাসা দেখিয়ে এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন ভারতের কেরালা রাজ্যের ইজাজ হাকিম ও আজনা নিজাম দম্পতি। গত ২৯ ডিসেম্বর কেরালার এই মুসলিম দম্পতির বিয়ে হয়।

উল্লেখ্য, বর্তমান বিশ্বে অনেক ধরনের ধর্ম রয়েছে। একেক ধর্মের বিয়ের রীতি নীতি একেক রকম। এক্ষেত্রে যার যার ধর্ম অনুযায়ী তারা তাদের বিয়ে সম্পন্ন করে থাকে। তবে মুসলিম ধর্মে বিয়ের ক্ষেত্রে অনেক নিয়ম-কানুন রয়েছে। এবং মোহরানার ও বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। কোন মুসলিম পুরুষ কোন নারীকে বিয়ে করলে এই মোহরানা প্রদান করা থাকে।