বর্তমান সময়ের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগ দল। পর পর তিন বার এই দল সরকার প্রধান এর দ্বায়িত্ব পালন করছে। বাংলাদেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই আওয়ামীলীগ দল সরকার গঠনে সফলতা অর্জন করছে। ২০১৮ সালে বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এই নির্বাচনে আওয়ামীলীগ দল বিপুল ভোটে জায় লাভ করে।
জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতি মোকাবিলায় বিশ্ব নেতাদের প্রতি মুহূর্তের নিষ্ক্রিয়তা মানবজাতিকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নিরাপদ ভবিষ্যৎ নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হলে নতুন প্রজন্ম আমাদের ক্ষমা করবে না।

সোমবার (২ ডিসেম্বর) স্থানীয় সময় সকালে স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদে ’অ্যাকশন ফর সারভাইভাল ভালনারেইবল নেশন্স কপ-২৫ লিডার্স’ শীর্ষক সম্মেলনে একথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, নতুন প্রজন্মের জন্য নিরাপদ ভবিষ্যৎ নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হলে আমাদের শিশুরা ক্ষমা করবে না। আমাদের (বিশ্ব নেতাদের) প্রতি মুহূর্তের নিষ্ক্রিয়তা পৃথিবীর প্রত্যেকটি মানুষের জীবিত মানুষকে ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। কাজ করার এখনই সময়।

তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন বিশ্বের জন্য এক নির্মম বাস্তবতা। এটি এখন মানবজীবন ও পরিবেশ, বাস্তুতন্ত্র এবং প্রাকৃতিক সম্পদের অপূরণীয় ক্ষতির কারণ।

জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে অভিবাসী সংকট মোকাবিলায় একটি যথাযথ কাঠামো তৈরি করতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, কার্যকর অভিযোজন কৌশল অনুযায়ী অভিবাসীদের মাইগ্রেশন হলে আমরা অবশ্যই এর প্রশংসা করবো। আক্রান্ত জনগোষ্ঠীর অভিযোজন ক্ষমতা বাড়ানোর ওপর জোর দিতে হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, বাস্তুচ্যুত ব্যক্তিদের স্থানান্তর ও সুরক্ষা নিশ্চিতে বিশ্ব সম্প্রদায়কে মনোযোগ দেওয়া দরকার। জলবায়ু পরিবর্তনে বাস্তুচ্যুত মানুষের প্রয়োজনে আমাদের একটি উপযুক্ত কাঠামো তৈরি নিয়ে আলোচনা শুরু করা দরকার।

সম্প্রতি, সময়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ জলবায়ু রাক্ষায় বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। বর্তমান সময়ে জলবায়ু সংকটে রয়েছে বিশ্ববাসী। এই জলবায়ু সংকট মোকাবিলায় বিশ্বের সকল দেশকে একত্রিত হয়ে কাজ করেতে হবে। তা হলে জলবায়ু সংকট মোকাবিলা করা সম্ভব হবে।