দেশ জুড়ে মানুষের মাঝে এক আতঙ্ক তৈরি হয়েছে করোনাভাইরাসকে ঘিরে। এই ভাইরাস মোকাবিলার জন্য বাংলাদেশের সরকার নানা ধরনের পদক্ষেপ গ্রহন করেছে। এবং আর্ন্তজাতিক সব ধরনের ফ্লাইট বাতিল ঘোষনা করেছে সরকার। এমনকি আজ সারা দেশের স্কুল, কলেজ সাময়িক সময়ের জন্য বন্ধ ঘোষনা করেছে।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল কামাল বলেছেন, করোনাভাইরাসের কারণে দেশের বার-হোটেল বন্ধের মতো কোনো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি। বেশিরভাগ বারই হোটেলভিত্তিক। বার বন্ধের প্রশ্ন তখন আসবে যখন হোটেল বন্ধ করে দেবে, সব ক্লোজ করে দেবে। আজ সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেশ থেকে যেকোনো মূল্যে অবৈধ দ্রব্য নির্মূল করা হবে। এই কার্যক্রমকে সফল করতে বেসরকারি উদ্যোগে গড়ে তোলা নিরাময় কেন্দ্রগুলোর মানোন্নয়নে সরকার আর্থিক অনুদান দেবে।অনেকেই কোয়ারেন্টাইন মানছেন না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যেখানেই আইন অমান্য হচ্ছে সেখানেই ব্যবস্থা নিচ্ছে। গাজীপুরের কালীগঞ্জে জনগণই স্বপ্রণোদিত হয়ে একজনকে ধরে নিয়ে ঘরে আবদ্ধ করেছে। সবাই সতর্ক হয়ে গেছে, যারা এ কাজটি করছে তারা নিজেরা এটি বিবেচনায় এনে সতর্ক হবেন বলে আশা করছি।

উল্লেখ্য, এখন পর্যন্ত ৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তি শনাক্ত হয়েছে এবং তিন জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন সরকারী ভাবে প্রকাশিত হয়েছে এমন সংবাদ। বাংলাদেশে ১৭মার্চ ঘিরে নানা আয়োজনের প্রস্তুতি ছিল। করোনাভাইরাসকে ঘিরে সকল ধরনের আয়োজন বাতিল করেছে সরকার। এবং দেশবাসীকে সর্তকথাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।