কোভিড১৯ ভাইরাসের সংক্রমনের ইতালির রাজনৈতিক অঙ্গনেও এক অস্থিতিশীল পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে। এবং অল্প সময়ের মধ্যেই সরকার পরিবর্তন হয়েছে। বর্তমান সময়ে দেশটির সরকারের দায়িত্ব পালন করছেন ইউরোপিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংকের সাবেক প্রধান মারিও দ্রাগি।
ইতালির নতুন প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার এক অভিনন্দন বার্তায় মুজিববর্ষ ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উৎসবে যোগ দেয়ার জন্য মারিও দ্রাঘিকে ঢাকা সফরের আমন্ত্রণ জানান তিনি। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানায়। উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে শেখ হাসিনা রোম সফর করেন। ওই সময় তিনি ইতালির তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীকে ঢাকা সফরের আমন্ত্রণ জানান। পরবর্তীতে গত বছরের মাঝামাঝি বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ইতালি।এ কারণে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী তখন ধন্যবাদ জানিয়ে ইতালির প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেন এবং আবারও তাকে ঢাকা সফরের আমন্ত্রণ জানান। এ বিষয়ে মঙ্গলবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, ’গোটা ইউরোপে যুক্তরাজ্যের পরে ইতালিতেই সবচেয়ে বাংলাদেশি থাকে। এ ছাড়া তাদের সঙ্গে আমাদের বাণিজ্যের পরিমাণও অনেক।উন্নয়ন ও সামরিকসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশকে সহযোগিতা করে আসছে ইতালি।

ইতালির সঙ্গে বাংলাদেশের সুসম্পর্ক রয়েছে। এমনকি বর্তমান সময়ে অসংখ্য বাংলাদেশী দেশটিতে বসবাস করছে। এই সুসম্পর্কের জের ধরেই দেশটির দায়িত্ব প্রাপ্ত সরকার মারিও দ্রাগিকে ধন্যবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।