বর্তমান সময়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সাথে তাল মিলিয়ে ক্রমশই এগিয়ে যাচ্ছে উন্নয়নের দিকে বাংলাদেশ। এই উন্নয়নের জন্য আপ্রান ভাবে কাজ করছে দেশের সরকার। অর্থনৈতিক খাতেও বেশ সফলতার সাথে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এরই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি জাতীয় সংসদে বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল জানালেন দেশের নাগরিকদের বর্তমান মাথাপিছু বৈদেশিক ঋণের পরিমাণ।
বর্তমানে বাংলাদেশের নাগরিকদের মাথাপিছু বৈদেশিক ঋণের পরিমাণ ২৪ হাজার ৮৯০ টাকা বলে সংসদে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) একাদশ জাতীয় সংসদের চতুর্দশ অধিবেশনে চট্টগ্রাম-৪ আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য দিদারুল আলমের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী এ তথ্য জানান। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপিত হয়।

মন্ত্রী বলেন, বর্তমানে বৈদেশিক ঋণের স্থিতি ৪৯ হাজার ৪৫৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। পরিসংখ্যান ব্যুরো থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী দেশে মোট জনসংখ্যা ১৬৯ দশমিক ৩১ মিলিয়ন। এই হিসেবে মাথাপিছু বৈদেশিক ঋণের পরিমাণ ২৯২ দশমিক ১১ মার্কিন ডলার। প্রতি ডলার ৮৫.২১ টাকা হিসেবে বাংলাদেশি টাকায় এর পরিমাণ দাঁড়ায় ২৪ হাজার ৮৯০ টাকা ৬৯ পয়সা। দিদারুল আলমের প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী জানান, বিভিন্ন উন্নয়ন সহযোগী দেশ/সংস্থার সঙ্গে ৩০ জুন ২০২১ পর্যন্ত ঋণ চুক্তির পরিমাণ ৯৫ হাজার ৯০৮ দশমিক ৩৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। এর মধ্যে ৫৯ হাজার ৪৫৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ছাড় হয়েছে।

আ হ ম মোস্তফা কামাল একজন রাজনীতিবিদ। তিনি ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল আওয়ামীলীগের সাথে যুক্ত রয়েছেন। এমনকি এই দলের হয়ে বাংলাদেশ সরকার অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করছেন। অবশ্যে তিনি ক্রীয়া অঙ্গনেও বিশেষ দায়িত্ব পালন করেছেন।

Sites