রাস্তা থেকে পার্ক— সব জায়গাতেই চলতে ফিরতে ফিরতে মেয়েদের চুমু খেয়ে পালিয়ে যাওয়াটাই সুমিতের খেলা। আর সেই চুমু খাওয়ার দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করে পরে আপলোড হয়ে যায় ‘ক্রেজি সুমিত’-এর ইউটিউব চ্যানেলে। সম্প্রতি এই ভিডিওগুলি কয়েক জনের নজরে আসে। তাঁরাই এই ভিডিওগুলিকে প্রশাসন এবং সংবাদমাধ্যমের নজরে আনেন। 
এই ইন্টারনেট ইউজাররা সুমিতকে এমন কাজের জন্য হুমকিও দেন। সুমিত তাঁর ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমেই জানায় এগুলি আসলে সে মজা করেই আপলোড করেছে। কোনও মেয়েকে খারাপ উদ্দেশে চুমু খেতে চাননি। একটু মজা করে ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করতেই সে এমনটা করেছে বলে জানায় সুমিত। ঘটনার জন্য সকলের কাছে ক্ষমাও চেয়ে নেয় সুমিত। এমনকী, এইসব ভিডিও সে তার ইউটিউব চ্যানেল থেকে ডিলিট করে দিয়েছে বলেও দাবি করে। 
‘প্র্যাঙ্ক’ করা বিদেশের জনপ্রিয় একটা খেলা। ইন্টারনেট মিডিয়ার দৌলতে এখন ভারতেও এই ‘প্র্যাঙ্ক’ যথেষ্টই জনপ্রিয়। সন্দেহ নেই, দিল্লির ছেলে সুমিতও এই ‘প্র্যাঙ্ক’-এর খেলায় ইন্টারনেট দুনিয়াকে মাতাতে চেয়েছে। কারণ, ‘ক্রেজি সুমিত’ নামে ইউটিউব চ্যানেলে এমনসব ভিডিও পাওয়া গিয়েছে যাতে সত্যি সত্যি তাঁকে বিভিন্ন স্থানে নানা বিষয়ে ‘প্র্যাঙ্ক’ করতে দেখা গিয়েছে।   
দেখুন ভিডিও...
তবে, কোনও আছিলায় মেয়েদের চুমু খেয়ে পালিয়ে যাওয়া এবং সেই ভিডিও ইন্টারনেটে আপলোড করে দেওয়াটা সাইবার অপরাধ বলেই গণ্য করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই দিল্লি পুলিশ নিজে থেকেই ‘ক্রেজি সুমিত’-এর ভিডিওগুলি খতিয়ে দেখছে। সাইবার অপরাধ নিয়ে কাজ করা বিশেষজ্ঞদের পরামর্শও নিচ্ছে পুলিশ। সুমিতের কর্মকাণ্ডকে বিকৃতকাম মনষ্ক বলে প্রতিপন্ন করছে দিল্লি পুলিশ। সুমিতের গ্রেফতার হওয়াটা এখন সময়ের অপেক্ষা বলেই মনে করা হচ্ছে। 
দেখুন ভিডিও... 
ebela

News Page Below Ad