বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোওয়ার সাকিব আল হাসান। ক্রিকেট বিশ্বে ব্যাপক জনপ্রিয় সাকিব আল হাসান। তিনি একজন অলরাউন্ডার। বাংলাদেশের প্রথম শ্রেনীর খেলোওয়ার তিনি। সম্প্রতি, তিনি আইসিসির শাস্তি ভোগ করছেন এবং ক্রিকেট থেকে বিরত রয়েছেন।আইসিসি সমগ্র বিশ্বে ক্রিকেট অঙ্গনকে নিয়ন্ত্রন করে।
দেশসেরা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে যোগ দিলন দেশের সবচেয়ে প্রিমিয়াম বাইক ব্র্যান্ড ইয়ামাহার সাথে। তরুণদের সাথে বেশিরভাগ কাজ করা এই মোটরসাইকেল ব্র্যান্ডের সাথে যুক্ত হতে পেরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন তরুণদের আইকন সাকিব আল হাসান।

ইয়ামাহা বাইকারদের রোড সেফটি নিয়ে সাম্প্রতিক সময়ে যে জোর দিয়েছেন সেই ব্যাপারে সাধুবাদ জানিয়েছেন সাকিব আল হাসান। একইসাথে বাইকারদের সবসময় হেলমেট পরিধান করে রাইডিংয়ের পরামর্শ দিয়েছেন জনপ্রিয় এই ব্যক্তিত্ব।

বাইক নিয়ে কথা বলতেই সাকিব আল হাসান জানান যে, তিনি নিজেও একজন বাইকপ্রেমী। সাক্ষাৎকারের এক পর্যায়ে তিনি ইয়ামাহাকে ধন্যবাদ জানান তাকে গঞ১৫ সিরিজের বাইক দিয়ে স্বাগতম জানানোর জন্যে।

ইয়ামাহার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে তিনি ইয়ামাহার সাথে দারুণ সব কাজ আর ইভেন্টের ব্যাপারে আশাবাদী। এদিকে সাকিবের ভক্তরাও ইয়ামাহা বাংলাদেশের অফিসিয়াল ফ্যানপেইজে সাকিব আল হাসানকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

সম্প্রতি সাকিব আল হাসান ও এসিআই মটরস এর মধ্যে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এই চুক্তিতে ইয়ামাহা’র ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে সাকিব আল হাসান ও এসিআই মটরস এর পক্ষে এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর জনাব সুব্রত রঞ্জন দাস স্বাক্ষর করেন।

ক্রিকেট খেলার পাশাপাশি জনপ্রিয় খেলোওয়াররা নানা কোম্পানির বিজ্ঞাপন সহ কোম্পানীর শুভেচ্ছে দূত হিসাবেও কাজ করে থাকে। বর্তমান সময়ে ক্রিকেট খেলার বাইরে থাকায় সাকিব আল ও এমন কর্মকান্ডে নিজেকে যুক্ত করেছেন। তিনি ইয়ামাহার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর নিয়োজিত হলেন।